গ্যালারীতে শব্দ ও কন্ঠে ভাসানো একটা সন্ধ্যা...শান্তা দেবনাথ - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

গ্যালারীতে শব্দ ও কন্ঠে ভাসানো একটা সন্ধ্যা...শান্তা দেবনাথ

অকারণে কিছুটা সময়ের জন্য হ্নদয খুলে হাসা,কিংবা কিছুটা সময়ের জন্য কেঁদে ফেলা,কিছুটা সময় ধরে দুটো লাইন লেখা,আঘাত লাগলে জোরেই একটু বকে দেওয়া কিংবা কিছুটা দূরে একা একাই একটু ঘুরে আসা হয়তোবা একলা ঘরে দরজা বন্ধ করে কিছুটা সময় চুপটি করে কাটানো ।কেউ কিছু জিজ্ঞেস করলে বলে উঠা ইচ্ছে হলো তাই।এমনটা প্রায়শই আমার সাথে হয়ে থাকে।
ঠিক এই রকম অনুভূতির একটা সন্ধ্যা কাটানো গত দুই ফেব্রুয়ারী 2019 এ গ্যালারী আর্ট পিসেসের আড্ডায।সামান্য একটু অনুভূতি,সামান্য একটু বাস্তবতা, সামান্য একটু শব্দ কিংবা সামান্য একটু কথা যে কতটা অসামান্য হতে পারে বাংলাদেশের জনপ্রিয় কবি জহির রায়হান দাদার "সামান্য একটি কবিতা "না শুনলে হয়তো বলা যেতো না।সামান্য যে কতটা অসামান্য হতে পারে দাদার কবিতায় সাক্ষী হয়ে রইল।
যদিও কবির কবিতা বলার শৈলী টাও অসামান্যই ছিল।এই সামান্য অনুভূতিগুলোই অনেক দিন বেঁচে থাকে। ছোটবেলায় মধুপুরে কাটে ।বিনোদন বলতে নাটক,যাত্রা, নিমাই সন্ন্যাস এগুলো বড়দের সাথে দেখতে যেতাম।সামাজিক নাটক বড় বউ,ছোট বউ,বাবা কেন চাকর আরো কত। একবার আমার বাবা চাকরের অভিনয় করেছিলেন আর নিচে অর্থাত দর্শকের আসনে বসে আমার মা জেঠিমারা কেঁদেই যাচ্ছেন।নাটক খুব একটা বুঝতাম না বলে দেখতাম না ।আমি দর্শকদের দেখতাম।মনে মনে ভাবতাম কেন কান্না করছে।নাটক যাত্রা দেখে দেখে এত কান্না কেন ।তখন থেকেই বাস্তব, অতি বাস্তব, অভিনয় এগুলোকে আলাদা আলাদা ভাবে চিনতে চেষ্টা করি আবার সেগুলোই যে মিলে মিশে একাকার সেটাও আস্তে আস্তে বোধগম্য হয় ।

সেদিন বাংলাদেশের লোক সংগীত শিল্পী কোহিনূর আক্তার গোলাপী দিদির কন্ঠে লোকগান। আহা সে যে ভাষায় বলার মত না।খাচার ভেতর অচিন পাখি, ভালোবাসা যন্ত্রণা, সত্য পথে চলবি এই গানগুলো শুনে চোখের জলকে আটকে রাখা গেল না ।সেই ছোট বেলা।হয়তো অকারণেই তাও একটু আবেগ।



কিছুটা সময়ের জন্য সমস্ত কিছু ভুলে গিয়ে গানের ভেতর ঢোকা।আহা সেই যে কি অনুভূতি ছোট বেলার প্রশ্ন টার উত্তর পাওয়া ।সাথে ছিলেন শিল্পী মন্তোষ দেবনাথ, শান্তনু শর্মা দাদা এবং বাংলাদেশের দম্পতি নুরুল দাদা এবং তৃষা দিদি।
সন্ধ্যেটা উপলব্ধি করতে পেরেছি শান্তনুদার জন্যই। দাদাকে ধন্যবাদ দেবো না বরং আবদার করব এরকম সন্ধ্যা না হয় মাঝে মাঝে পেলে আমরা নিজেদের সংস্কৃতিকে এভাবেই ভাগ করে নেব।


শান্তা দেবনাথ, পরিচালিকা
গ্যালারী আর্ট পিস, আগরতলা

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here