সংবাদকর্মীদের সুরক্ষা ও বেতন-ভাতা নিশ্চিতের আহ্বান বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রীর - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শনিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২০

সংবাদকর্মীদের সুরক্ষা ও বেতন-ভাতা নিশ্চিতের আহ্বান বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রীর

আবু আলী, ঢাকা।। মহামারী রূপ ধারণ করা করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবের মধ্যে টেলিভিশন মাধ্যমে কর্মরত সংবাদকর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের জন্য সংশ্লিষ্ট মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। একই সঙ্গে বকেয়াসহ বেতন-ভাতা পরিশোধ এবং বিমা নিশ্চিত করারও আহ্বান জানান তিনি। ১১ এপ্রিল শনিবার রাজধানী মিন্টু রোডে সরকারি বাস ভবনে ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের (বিজেসি) নেতাদের সঙ্গে বৈঠককালে এ আহ্বান জানান তিনি। বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) সম্প্রচার সাংবাদিকদের করোনা পরীক্ষায় বিশেষ ব্যবস্থা নেবে সরকার।’ মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে বিরাজমান করোনা পরিস্থিতিতে সম্প্রচার সাংবাদিক, কর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের উপসর্গ দেখা দিলে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পরীক্ষা করানোর জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার। রাজধানী ঢাকায় এজন্য বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালকে নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।’ বিজেসি’র চেয়ারম্যান রেজোয়ান হক ও সাধারণ সম্পাদক শাকিল আহমেদের নেতৃত্বের পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে সম্প্রচার সাংবাদিক ও কর্মীদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত, বকেয়াসহ বেতন পরিশোধ ও বিমার আওতায় আনার দাবি জানান। তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কোনো সম্প্রচার কর্মী ও সাংবাদিক যদি কোভিড-১৯ পজেটিভ হন, তার চিকিৎসা ব্যবস্থা নিশ্চিতে সরকারের সব ধরনের সহায়তা করবে। এসময় তিনি গণমাধ্যমকে জরুরি তথ্যসেবা খাত হিসেবে উল্লেখ করে সকল টেলিভিশন মালিকদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বিমার আওতায় আনার জন্য অনুরোধ জানান।’ দরকার হলে সরকারি জীবন বীমা করপোরেশনের সঙ্গেও কথা বলবেন বলে জানান তথ্যমন্ত্রী। যেসব প্রতিষ্ঠান এখনো বকেয়াসহ বেতন পরিশোধ করেননি, তাদেরকে দ্রুত বেতন পরিশোধের পরামর্শও দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী। এসময় বিজেসি নেতারা যেসব প্রতিষ্ঠানে বেতন বকেয়া রয়েছে তার একটি তালিকাও হস্তান্তর করেন মন্ত্রীর কাছে। হাছান মাহমুদ বলেন,‘ গুজব ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে শুরু থেকে মূলধারার গণমাধ্যম কাজ করে যাচ্ছে। এই দুর্যোগকালীন সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গণমাধ্যম কর্মীরা জনসচেতনতা তৈরিতে যে নিরলস পরিশ্রম করছেন, তার জন্য সব গণমাধ্যম কর্মিকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে সরকার।’

১১ই এপ্রিল ২০২০

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here