জন্মদিনের ভাবনা:-পরকালে বসত করিতেছে" .....সাইফুর রহমান কায়েস,বাংলাদেশ - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০

জন্মদিনের ভাবনা:-পরকালে বসত করিতেছে" .....সাইফুর রহমান কায়েস,বাংলাদেশ

জন্মিলে মরিতে হইবে। তাই আমার একপা কবরে চলে গেছে। জন্মদিনে বয়স বাড়িয়া গেলে জীবনের ব্যাপ্তিকালও কমিয়া আসে। আমার নিজেরও কমিয়া যাইতেছে। নিজের আধা পঙ্গুত্ব ঊনমানুষে রূপান্তরের চিহ্ন বহন করিতেছে। প্রিয়মানুষদের ভালোবাসায় সিক্ত হইতে পারিয়া তাহাদের প্রতি নমিত হইতে চাই। কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করিতে চাই। হরেক কিসিমের ক্রমযোজিত যজ্ঞে নিজেকে নিযুক্তিরদরুণ জ্ঞানচক্ষু উন্মেষিত হইয়া যাবার সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিতে পারিনা। হাওড়ের জলে ভাসিয়া উঠে মায়ের মুখ,হারাইয়া যাওয়া বন্ধুর প্রতিকৃতি, পুত্রকন্যার সহাস্যমুখ আমি দেখিতে থাকি জলের প্রতিটি কল্লোলে। আমার শিশুবেলার পুতুলের সাথে সংসার ক্রমেই মানুষ হইয়া আঁকড়াইয়া ধরে। আমি ক্বারী আমীর উদ্দিনের মতো এখন পরকালে বসবাস করিতেছি। রাতে বিছানায় ঘুমাইয়া থাকিলেও দিনের শুরুতে কখন যে কবরবাসী হইয়া যায় সেটিই এখন আমার মনকে উষ্কানী দিতে থাকে। মন এখন পাগলপারা। খোয়াই, করাঙ্গীতে যখন এই আষাঢ়ে ঢল নামে তখন নিজের মনে বেঙাই বইয়া যাইতে থাকে। বাড়ির আশপাশের জমি যখন জলমগ্ন হইয়া যায় তখন ব্যাঙের ডাকে আকাশও গলিয়া যায়। জুরুতনালে ঝমঝম বৃষ্টিতে সবকিছুই শীতল হইয়া যায়। মনের উষ্ণতা দূরীভূত হইয়া যায়। একটা ক্ষেমঙ্করী উপাখ্যান রচিত হইতে থাকে। কোনো রাজকুমারীর জন্য মন কান্দিয়া উঠে। বাড়ির সামনের বিলের জলে হামাগুড়ি দিতে থাকে আমার স্বপ্নঘোর পূর্ণিমা।

সাইফুর রহমান কায়েস
বাংলাদেশ
আরশিকথা

১৪ই জুলাই ২০২০

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here