সামাজিক কর্মসূচীর মধ্য দিয়েই হলো " আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০" এর কভার পেজ উদ্বোধনঃ আগরতলা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সামাজিক কর্মসূচীর মধ্য দিয়েই হলো " আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০" এর কভার পেজ উদ্বোধনঃ আগরতলা

নিজস্ব প্রতিনিধি,আগরতলা,আরশিকথাঃ
২০১৬ সালের সূচনালগ্ন থেকেই নানা আঙ্গিকে পথ চলছে আরশিকথা।মূল উদ্দেশ্য এবং লক্ষ্য একটাই - গোটা বিশ্ব জুড়ে বাংলা ভাষাকে আরও ছড়িয়ে দিয়ে তার মর্যাদা এবং শ্রীবৃদ্ধি অক্ষুন্ন রাখা।বিশ্ব জুড়ে বাংলা ভাষাভাষীদের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ ভাবনার বিনিময় ঘটিয়ে এক অটুট সম্পর্কের বন্ধনে যুক্ত থাকা।শুরুতেই পত্রিকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলেও ২০১৮ সালে তা সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে আরশিকথা অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টালে পরিবর্তিত হয়।এর ফলে গোটা বিশ্বের সাথে যোগাযোগ স্থাপনে আরও সফলতা অর্জন করে আরশিকথা।ইতিমধ্যেই আরশিকথা ১০টি দেশের সঙ্গে সংযুক্ত হতে পেরেছে।লক্ষাধিকেরও বেশী মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে সফলতা অর্জন করতে পেরেছে।৫০ হাজারেরও বেশী সম্মানিত পাঠক ও দর্শকের ভালোবাসা ও সহযোগিতায় এক অসাধারণ অনুপ্রেরণায় বিরামহীন এগিয়ে যাওয়ায় পথ চলছে আরশিকথা।
প্রতিদিনকার তথ্য - সংবাদ প্রদান সহ নানা প্রয়োজনীয় মূল্যবান প্রতিবেদন এবং বিনোদনে সবার মন জয় করে এগিয়ে চলেছে আরশিকথা অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল।এছাড়া বিজ্ঞাপনদাতাগণের সহায়তা এবং আরশিকথা গ্লোবাল সাহিত্য ফোরামের সদস্য সদস্যাদের নানা স্বেচ্ছা সহযোগিতায় রাজ্য, বহিরাজ্য সহ দেশবিদেশের খ্যাতনামা ও বিশিষ্ট শিল্পীদের সমন্বয়ে বিগত ৪ বছরে বহু সামাজিক এবং আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড সংঘটিত করা সম্ভব হয়েছে।।বিগত বছরগুলির মতো এবছরও এর ব্যতিক্রম হয়নি।প্রসঙ্গত, ২০১৯ সাল থেকেই এক সিদ্ধান্তক্রমে আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন প্রকাশ করা শুরু হয়েছে।











পাশাপাশি ম্যাগাজিনটিকে দেশ-বিদেশের  বিশেষ সরকারি বেসরকারি সংস্থা সহ সমাজের উচ্চপদস্থ ও বিশেষ ব্যক্তিত্বদের কাছেও পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

সেই লক্ষ্যে এবছরও অর্থাৎ ২০২০ সালের আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন প্রকাশনার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।দেশবিদেশের বিশিষ্ট ও জনপ্রিয় লেখক,সাংবাদিক,কবি, প্রতিবেদক,কলামিস্ট, ব্লগারদের গল্প,কবিতা,প্রতিবেদন ও তথ্য সংবাদে সমৃদ্ধ থাকছে " আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০ "।আসন্ন দুর্গাপূজার একটি নির্দিষ্টদিনে যাবতীয় সামাজিক ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাজ্যের বিশিষ্ট ও গুণীজনদের উপস্থিতিতে ম্যাগাজিনটির উদ্বোধন করবেন ত্রিপুরা রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা।

এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত তথ্য জানিয়ে শ্রী দেববর্মার সাথে সাক্ষাৎ করে তার অনুমতি নেওয়া হয়েছে।সাক্ষাৎকালে উপমুখ্যমন্ত্রীকে আরশিকথা'র পক্ষ থেকে একটি স্মারক উপহার ও "আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০১৯" এর কপি প্রদান করা হয়।
 বর্তমান পরিস্থিতির দিকে লক্ষ্য রেখে বিগত বছরগুলির মতো এবছর দেশবিদেশের শিল্পী সমন্বয়ে  আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মঞ্চস্থ করার বিষয়ে  বিরত থাকা হয়েছে। তবে নানা প্রয়োজনীয় সামাজিক কর্মকাণ্ডে "আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০ " কর্মসূচী পালন করা হবে।এরই অঙ্গ হিসেবে ১৭ই সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার শুভ মহালয়া এবং দেবশিল্পী বিশ্বকর্মা পূজার পুণ্য তিথিতে আগরতলার বনমালীপুরস্থিত আরশিকথার প্রধান কার্যালয়ের সামনে পরিবারের ত্রিপুরা বিভাগের সকল সদস্য ও সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে একটি সামাজিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে "আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০ " এর ম্যাগাজিন কভারের শুভ উদ্বোধন হয়।
বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী ম্যাগাজিন প্রচ্ছদে এবার সুরক্ষা ও সচেতনতার বার্তাকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।এবছরের কভার পেজ নির্মাণ করেছেন আগরতলা 'কালার্স প্রিন্টার্স' এর কর্ণধার সুশান্ত হাজরা। 




এদিন আরশিকথা পরিবার এবং আরশিকথা গ্লোবাল সাহিত্য ফোরাম এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যরা বস্ত্রদান কর্মসূচীর অঙ্গ হিসেবে আগরতলা পুর নিগমের মহিলা সাফাই কর্মীদের হাতে নতুন বস্ত্র এবং স্বল্প খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন।এদিন এই মহতি উদ্যোগে এলাকার কয়েকজন বিশিষ্ট নাগরিকও উপস্থিত ছিলেন।এদিন আরও কয়েকটি পুরওয়ার্ডের মহিলা সাফাই কর্মীদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করা হয়





এছাড়া সংস্থার তরফে পূর্বদয় সামাজিক সংস্থার দানসামগ্রী প্রদান করার অভিনব আউটলেট " হার্ট অব হিউমিনিটি" এর শঙ্কর চৌমুহনীস্থিত সেন্টার সহ রাধানগর ও জিবি বাজার সংলগ্ন আউটলেটেও আরশিকথা গ্লোবাল সাহিত্য ফোরাম সদস্যদের তরফে দুঃস্থ ও অসহায়দের জন্য বস্ত্র ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। আরশিকথা আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ২০২০ " উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে এবছর আরশিকথা অনলাইন বাংলা নিউজ পোর্টাল মোট ১০০জন সাফাই কর্মী ও দুঃস্থদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
এদিন আরশিকথা'র পক্ষে অন্যতম উপদেষ্টা তথা বিশিষ্ট সাংবাদিক অমিত ভৌমিক, নিউজ বিভাগের চিত্র সাংবাদিক সুমিত কুমার সিংহ এবং আরশিকথা গ্লোবাল সাহিত্য ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির তরফে অন্যতম প্রধান উপদেষ্টা ড. আশীষ কুমার বৈদ্য, সম্পাদক টিঙ্কু রঞ্জন দাস, পরিচালক মন্ডলীর সদস্য রতন আচার্য, শ্যামল কান্তি দে, সুস্মিতা ধর, গীতশ্রী ভৌমিক, মৌসুমী কর, সুজাতা সোম, চন্দ্রা মজুমদার সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া এলাকার বিশিষ্ট নাগরিক প্রণব চৌধুরী ও তপন কুমার দাস প্রমুখরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া পূজার তিনদিন প্রতিদিন দুঃস্থ ও অসহায়দের মধ্যে খাদ্যও বিতরণ করা হবে।পাশাপাশি সারা বছরের কর্মসূচী হিসেবে ফুটপাথ ব্যবসায়ী ও দৈনিক শ্রমিকদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধির তথ্য প্রদান এবং সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ লকডাউনের শুরুকাল থেকেই চলছে এবং চলবে।এবছর আরশিকথার তরফে নানা অনলাইন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্যোগও গ্রহণ করা হয়েছে।গোটা কর্মসূচীকে সার্থক রূপ দিতে আরশিকথা পরিবার সহ রাজ্য,বহিরাজ্য এবং দেশবিদেশের বিশিষ্টজনরাও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

আরশিকথা হাইলাইটস
২০শে সেপ্টেম্বর ২০২০

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here