পেঁয়াজ নিয়ে দিল্লিতে হিন্দিতে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন শেখ হাসিনা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

শুক্রবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৯

পেঁয়াজ নিয়ে দিল্লিতে হিন্দিতে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন শেখ হাসিনা

প্রতীক রায়,আরশিকথাঃ ‘আচানক আপনে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ কর দিয়া, হামারে লিয়ে ইয়ে মুশকিল বন গ্যায়া। তো আগে সে আগর কিসিবি তারপ ত্র্যাসি করনা হ্য তো হামে প্যাহেলেসে বাতা দেনা।’ ভারত হঠাৎ বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় দিল্লিতে এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পূর্বঘোষণা ছাড়া বাংলাদেশে কেন পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করা হলো, এমন প্রশ্ন তুলে ভারতের ব্যবসায়ীদের দ্রুত এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থানীয় সময় দুপুরে নয়াদিল্লির আইটিসি মাইয়্যুরা হোটেলে ভারত-বাংলাদেশ বিজনেস ফোরাম উদ্বোধন করে এ আহ্বান জানান তিনি। ব্যবসা ও বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ এ মূহূর্তে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে উপযোগী স্থান উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও দুর্নীতিবিরোধী অবস্থানের কারণে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনের নয়াদিল্লির আইটিসি মাইয়্যুরা হোটেলে বাংলাদেশ ভারত বিজনেস ফোরামের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুই দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের এ আয়োজনে ভৌগলিক ও কৌশলগত অবস্থানে থাকা বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও বাণিজ্য সম্ভাবনার নানাদিক তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি বিরোধী অবস্থানের কারণে বিদেশি ব্যবসায়ীদের জন্য নিরাপদ ভূমি এখন বাংলাদেশ। দুই দেশের জনগণের জীবনমান উন্নয়নে প্রতিবেশীদের একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। ভারত থেকে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করে, দ্রুত এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী হিন্দিতে বলেন, আচানাক আপনে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ক্যার দিয়া, হামারে লিয়ে এ মুশকিল বান গ্যায়া। তো আগে সে আগার কিসিবি তারাপ ত্র্যাসি করনা হ্য তো হামে প্যাহেলেসে বাতা দেনা। এর আগে একইস্থানে ভারতে শীর্ষস্থানীয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৪ঠা অক্টোবর ২০১৯

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner