পদ্মাসেতু নির্মাণে ‘মানুষের মাথা লাগবে’ গুজব ছড়ানোয় আটক ৮ - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০১৯

পদ্মাসেতু নির্মাণে ‘মানুষের মাথা লাগবে’ গুজব ছড়ানোয় আটক ৮

ঢাকা ব্যুরো অফিস: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে—এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে আটজনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর মধ্যে নড়াইল, চট্টগ্রাম, মৌলভীবাজার, কুমিল্লা ও রাজবাড়ী থেকে মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে র্যােব। আর চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ একই কারণে গ্রেফতার করেছে তিন জনকে। র্যা বের হাতে গ্রেফতারকৃতরা হলেন—শহীদুল ইসলাম (২৫), আরমান হোসাইন (২০), ফারুক (৫০), হায়াতুন্নবী ও পার্থ আল হাসান (১৬)। বৃহস্পতিবার রাতে র্যাড়ব অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। গতকাল শুক্রবার বিকালে র্যাাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক সিনিয়র এএসপি মো. মিজানুর রহমান ভুঁইয়া জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে। তাদের থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান র্যায়বের এ কর্মকর্তা। এদিকে ‘এক লাখ শিশুর মাথা কেটে তৈরি হচ্ছে পদ্মা সেতু’ ফেসবুকে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে হায়াতুন্নবী নামে ঐ যুবককে আটক করেছে র্যাতব। শুক্রবার ভোরে কুমিল্লার জেলার লাকসাম থেকে তাকে আটক করা হয়। অন্যদিকে শুক্রবার দুপুরে চাঁদপুর মডেল থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে ওসি মো. নাসিম উদ্দিন পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তিন জনকে গ্রেফতারের কথা জানান। এরা হলেন—সদর উপজেলার ইসলামপুর গাছতলা এলাকার সেলিম গাজীর ছেলে সাজ্জাদ গাজী (২২), ফরিদগঞ্জ কাসারা এলাকার আব্দুল মান্নান ভুঁইয়ার ছেলে সায়েম ভুঁইয়া (২১), বাগড়াবাজার এলাকার মোখলেছ হাওলাদারের ছেলে আবু খালেক রতন (২৩)। পুলিশের হুঁশিয়ারি পুলিশ সদর দপ্তর এ নিয়ে নাগরিকদের উদ্দেশে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। ঐ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘গুজবে বিভ্রান্ত হবেন না। পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে, এটা গুজব।’ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়া পুলিশ এ গুজবের বিরুদ্ধে গত ১০ জুলাই বিকাল থেকে ফেসবুকে প্রচারণা শুরু করেছে। পুলিশ সদর দপ্তরের জনসংযোগ ও গণমাধ্যম শাখার এআইজি সোহেল রানা বলেন, ‘কিছু ব্যক্তি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে বলে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করছে। এটি পুরোপুরি মিথ্যা ও গুজব। এসব গুজবে কান না দেওয়ার জন্য দেশবাসীকে অনুরোধ জানানো হচ্ছে। পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রচারণাকে ‘কুচক্রী মহলের গুজব’ বলে জানিয়েছে পদ্মা সেতু প্রকল্প কর্তৃপক্ষ। পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম সরকারের প্রধান তথ্য কর্মকর্তার কাছে লেখা চিঠিতে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ পরিচালনায় মানুষের মাথা লাগবে বলে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার চালাচ্ছে, তা প্রকল্প কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে। আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এটি একটি গুজব। এর কোনো সত্যতা নেই। এমন অপপ্রচার আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য দেশবাসীকে অনুরোধ জানাচ্ছি।

১৩ই এপ্রিল ২০১৯

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here