সহকারী হাইকমিশনের আয়োজনে আগরতলায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপনঃ ঢাকা ব্যুরো - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০

সহকারী হাইকমিশনের আয়োজনে আগরতলায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপনঃ ঢাকা ব্যুরো

প্রভাষ চৌধুরী,ঢাকা ব্যুরো এডিটরঃ আলোচনা সভা, কবিতা পাঠ, নৃত্য, জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও এতিম শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণের মধ্য দিয়ে ত্রিপুরার আগরতলায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপন করা হয়েছে। বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে জন্মশতবর্ষ ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) দিনব্যাপী জমকালো বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আগরতলায় বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশন।
দিনের শুরুতে সকাল ৯টায় সহকারী হাইকমিশন প্রাঙ্গণে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ৯টা ৫ মিনিটে অত্র অফিস প্রাঙ্গণে সহকারী হাইকমিশনের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
সকাল ৯টা ১০ মিনিটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দেয়া বাণী পাঠ করা হয়।

সকাল সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, সিভিল সোসাইটির গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং আগরতলা মিশনে কর্মরত সব সদস্য এবং বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষদের নিয়ে উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।




আলোচনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন অত্র মিশনের প্রথম সচিব ও দূতালয় প্রধান জনাব মো. জাকির হোসেন ভূঞা, ত্রিপুরা কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক অরুনোদয় সাহা,মুক্তিযুদ্ধের সম্মাননা প্রাপ্ত ব্যক্তিত্ব শ্রী স্বপন ভট্টাচার্য, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব আগরতলাস্থ রামঠাকুর কলেজের অধ্যাপক মো. মুজাহিদুর রহমান, বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব ড. আশিষ কুমার বৈদ্য, শিক্ষাবিদ দেব ব্রত দেব রায়, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শ্রী অমিত ভৌমিক, অত্র মিশনের প্রথম সচিব (স্থানীয়) জনাব এস. এম. আসাদুজ্জামান প্রমুখ। সমাপনী বক্তব্য রাখেন অত্র মিশনের সহকারী হাইকমিশনার কিরীটি চাকমা। সহকারী হাইকমিশনার কিরীটি চাকমা তার বক্তব্যে গভীর শ্রদ্ধার সহিত স্মরণ করেন বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যার সম্মোহনী ব্যক্তিত্ব ও ঐন্দ্রজালিক নেতৃত্ব সমগ্র মুক্তিযুদ্ধে বাঙালি জাতিকে একসূত্রে গ্রোথিত করেছিল। তিনি আরোও উল্লেখ করেন, দেশ ও জনগণের প্রতি তাঁর অসামান্য অবদানের জন্য বাংলা, বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু আজ এক ও অভিন্ন সত্তায় পরিণত হয়েছে। তিনি জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে অসাম্প্রদায়িক, উন্নত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় ভারত সরকার তথা ত্রিপুরা সরকার, ত্রিপুরাবাসী এবং ভারতবাসীকে বাংলাদেশের পাশে থাকার আহবান জানান। দুপুর সাড়ে ১২টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ উদযাপনের অংশ হিসেবে সহকারী হাইকমিশনের পক্ষ থেকে দুই শতাধিক অনাথ শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।


ছবিঃ সুমিত কুমার সিংহ

১৭ই মার্চ ২০২০

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here