কাশ্মীর নিয়ে বাংলাদেশে জল ঘোলা করলে ব্যবস্থা: র‌্যাব ডিজি - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

শুক্রবার, ৯ আগস্ট, ২০১৯

কাশ্মীর নিয়ে বাংলাদেশে জল ঘোলা করলে ব্যবস্থা: র‌্যাব ডিজি

আবু আলী, ঢাকা:
ভারতের কাশ্মীর ইস্যুতে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে কেউ জল ঘোলা করার চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। ৯ আগস্ট শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে ঈদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন হুঁশিয়ারি দেন।
কাশ্মীরকে কেন্দ্র করে দেশের অভ্যন্তরে উগ্রবাদে বিশ্বাসীরা মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে কি না- জানতে চাইলে বেনজীর বলেন, কাশ্মীর ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়, এ বিষয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। আমাদের দেশে আল্ট্রা ইসলামিস্টের সংখ্যাটা খুব বেশি না। তারা ২৪ ঘণ্টা আমাদের নজরদারীতে আছে। যে বিষয়টা আমাদের সঙ্গে কোনো সংশ্লিষ্ট নয়, সে বিষয় নিয়ে কোনো সুস্থ বুদ্ধি সম্পন্ন মানুষের দেশের জল ঘোলা করার কোনো কারণ দেখি না। কেউ জল ঘোলা করার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
যা আমার দেশের সমস্যা নয়, আমার দেশের বিষয় নয়, সে বিষয় নিয়ে কেউ অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি করলে কিংবা কোনো ঝামেলার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
প্রসঙ্গত, গত সোমবার ভারতের সংবিধানে ৩৭০ ধারা বলে জম্মু ও কাশ্মীরকে যে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া হয়েছিল তা বাতিল করা হয়। পাশাপাশি রাজ্যটিকে ভেঙে লাদাখ ও জম্মু-কাশ্মীর নামে দুটি আলাদা কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল ঘোষণা করা হয়। এই ঘোষণায় ভারতের পাশাপাশি প্রতিবেশি দেশ পাকিস্তানেও উত্তেজনা ছড়িয়েছে। এরই মধ্যে পাকিস্তান ভারতের সাথে কূটনীতিক যোগাযোগ ছিন্ন করেছে। স্থগিত করেছে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, রেল ও বিমান যোগাযোগ।
ঈদ নিরাপত্তার বিষয়ে র‌্যাব ডিজি বলেন, সামনেই আমাদের দুইটি বড় ইভেন্ট ঈদুল আজহা এবং ১৫ আগস্ট রয়েছে। ঈদ উপলক্ষ্যে ঈদ পূর্ববর্তী-ঈদের দিন এবং ঈদের পরবর্তি নিরাপত্তার বিষয়ে আলাদা আলাদা নিরাপত্তা পরিকল্পনা রয়েছে। সে অনুযায়ী পুরো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ‘এবারের ঈদে অন্যান্য নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি গরুর হাটের বিষয়টি রয়েছে। হাটে ক্রেতা-বিক্রেতার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দেশজুড়ে র্যাব কাজ করছে। হাটে জালটাকা ও অজ্ঞানপার্টির তৎপরতা রোধে র‌্যাব তৎপর রয়েছে।
ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে প্রতিটি বাস-লঞ্চ টার্মিনাল ও ট্রেন স্টেশনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা র্যাব মনিটরিং করছে। তবে উত্তর পূর্বাঞ্চলে বন্যার জন্য এবার অনেক সড়ক ও রেলপথ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। সে কারণে যান চলাচলে কোথাও কোথাও ধীরগতি রয়েছে। তবে যতটুকু সম্ভব ঈদযাত্রা স্বাভাবিক রাখতে আমরা কাজ করছি।’
সারা দেশের মহাসড়কে ৪২টা দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকা শনাক্ত করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সেসব স্থানে যেন দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে, তা আমাদের নজরদারী রয়েছে। তবে এ বিষয়ে চালকদের ভূমিকার পাশাপাশি যাত্রীতেরও দায়িত্ব রয়েছে ‘
 বেনজীর জানান, জাতীয় ঈদগাহসহ গুরুত্বপূর্ণ সকল ঈদগাহের নিরাপত্তায় আমাদের সিসিটিভি মনিটরিং থাকবে, ডগ স্কোয়াডের মাধ্যমে সুইপিং করা হবে।

৯ই আগস্ট ২০১৯

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner