ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

বুধবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২১

ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী

আবু আলী, ঢাকা,আরশিকথা ॥ ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর একটি সমন্বিত কন্টিনজেন্ট। ১৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার এই কন্টিনজেন্ট ভারতের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছে। আইএসনপিআর জানিয়েছে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলে ভারতের হাইকমিশন আগামী ২৬ জানুয়ারি ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে সশস্ত্র বাহিনীর একটি সমন্বিত কন্টিনজেন্টকে (মার্চিং ব্যান্ডসহ) প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেডে (কুচকাওয়াজ) অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানিয়েছে। এ উপলে অনুষ্ঠিতব্য কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর ১২২ সদস্যের একটি সমন্বিত কন্টিনজেন্ট কর্নেল মোহাম্মদ মোহতাশিম হায়দার চৌধুরীর নেতৃত্বে মঙ্গলবার ভারতের উদ্দেশ্যে হযরত শাহজালাল আন্তজাতিক বিমান বন্দর ত্যাগ করেছে। কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান শেষে সশস্ত্র বাহিনীর সমন্বিত কন্টিনজেন্ট আগামী ৩০ জানুয়ারি দেশে ফিরবে ওই কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর পারস্পরিক সমন্বয় বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে। জানা গেছে, ভারতের ইতিহাসে তৃতীয়বারের মতো কোনো বিদেশি সামরিক বাহিনীর দলকে মধ্য দিল্লির রাজপথে জাতীয় কুচকাওয়াজে অংশ নিতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ, কারণ ২০২১ সালে মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্ণ হচ্ছে, যার মাধ্যমে বাংলাদেশ অত্যাচার ও নিপীড়নের কবল থেকে মুক্ত হয়ে একটি স্বাধীন জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিল। ৫০ বছর আগে যে বাহিনী একসঙ্গে লড়াই করেছে, এখন তারা গর্বের সঙ্গে রাজপথে মার্চ করবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী স্বাধীনতা, ন্যায়বিচার এবং তাদের জনগণের পে লড়াই করা সাহসী মুক্তিযোদ্ধাদের উত্তরাধিকারকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর দলটিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নাবিক এবং বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর বিমান সেনারা রয়েছেন। বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের বেশিরভাগ সৈন্যই বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সর্বাধিক দ ইউনিট থেকে আগত, যার মধ্যে রয়েছে ১, ২, ৩, ৪, ৮, ৯, ১০ ও ১১ ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্ট এবং ১, ২ ও ৩ ফিল্ড আর্টিলারি রেজিমেন্ট, যারা একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ ও বিজয় অর্জনের অনন্য সম্মানে ভূষিত। এ কুচকাওয়াজ আগামী ২৬ জানুয়ারি বিশ্বব্যাপী সরাসরি সম্প্রচারিত হবে।


আরশিকথা বাংলাদেশ সংবাদ

১৩ই জানুয়ারি ২০২১
 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner