যুবসমাজের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের জন্য খেলাধুলায় বেশি করে উৎসাহিত করতে হবে : ক্রীড়া মন্ত্রী , ত্রিপুরা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

যুবসমাজের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের জন্য খেলাধুলায় বেশি করে উৎসাহিত করতে হবে : ক্রীড়া মন্ত্রী , ত্রিপুরা

নিজস্ব প্রতিনিধি,আগরতলা, আরশিকথাঃ


যুব বিষয়ক অধিদপ্তরের মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরীর সভাপতিত্বে মঙ্গলবার বিলোনিয়ার পুরাতন টাউনহলে জেলাভিত্তিক ক্রীড়া উন্নয়ন বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক শংকর রায়, বিধায়ক অরুণ চন্দ্র ভৌমিক, যুববিষয়ক ও ক্রীড়া দফতরের অধিকর্তা সুবিকাশ দেববর্মা, শান্তিরবাজার মহকুমার মহকুমা শাসকরা, যুব ও ক্রীড়া দপ্তর আধিকারিকরা, ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের জনপ্রতিনিধিগণসহ অন্যান্যরা।

পর্যালোচনা সভায় যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী বলেন, ক্রিড়াক্ষেত্রের উন্নয়নে দপ্তর কর্মী ও ক্রীড়াপ্রেমীদের এগিয়ে আসতে হবে। তিনি জেলার ক্রীড়ার মানোন্নয়নে এবং ক্রীড়ার পরিকাঠামোগত উন্নয়নে দপ্তরের আধিকারিক ও মহকুমাশাসকদের বিভিন্ন পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, যুবসমাজের শারীরিক ও মানসিক বিকাশের জন্য খেলাধুলা ও শরীরচর্চা বেশি করে উৎসাহিত করতে হবে। খেলাধুলা ও শরীরচর্চা বিদ্যালয় স্তরে পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা চলছে। যাতে করে ছাত্রছাত্রীরা বেশি করে এ কাজে যুক্ত হতে পারে। প্রায় প্রতিটি বিধানসভা এলাকায় দুই তিনটি করে ওপেনজিম তৈরি করার প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছে। খেলো ইন্ডিয়া প্রকল্পে রাজ্যে চারটি ক্রীড়া পরিকাঠামোর উন্নয়নের কাজ চলছে। তাতে প্রায় কুড়ি কোটি টাকা ব্যয় হবে। ক্রীড়া প্রতিভা খুঁজে বের করতে ও যুব সমাজকে ক্রীড়াক্ষেত্রে উদ্বুদ্ধ করে নেশা মুক্ত সমাজ গড়ার কাজে দপ্তরকে দায়িত্ব নিতে হবে।
সভায় তিনি জেলার ক্লাবগুলিকে স্থানীয় খেলোয়াড়দের নিয়ে মহকুমা ভিত্তিক ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করার পরামর্শ দেন। পর্যালোচনা সভায় তিনি উপস্থিত ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও ক্লাব প্রতিনিধিদের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন।


আরশিকথা ত্রিপুরা সংবাদ


ছবিঃ সংগৃহীত

২১শে সেপ্টেম্বর ২০২১



 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner