১২,০০০ রিক্সা চালক ও ক্ষৌর কর্মী পরিবারকে দেওয়া হবে ১০০০ টাকা করে সহায়তা : মুখ্যমন্ত্রী - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

রবিবার, ৩১ মে, ২০২০

১২,০০০ রিক্সা চালক ও ক্ষৌর কর্মী পরিবারকে দেওয়া হবে ১০০০ টাকা করে সহায়তা : মুখ্যমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি,আগরতলাঃ
" বিরাট হৃদয়ের জন্য ত্রিপুরার যে গৌতম দাসকে দেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিজী চিহ্নিত করেছেন, ত্রিপুরা সরকার তার পরিবারের জন্য আর্থিকভাবে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেবে।" 

রবিবার আগরতলা প্রতাপগড় এলাকার গরীব ঠেলা চালক গৌতম দাসকে নিজের সরকারি বাসভবনে সম্বর্ধিত করে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী শ্রী বিপ্লব কুমার দেব।  এদিন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর  "মন কি বাত" অনুষ্ঠানে দেশের গরীব অংশের নাগরিকরাও কিভাবে নিজের সর্বস্ব উজাড় করে দিয়ে দুঃস্থ মানুষের সেবা করে চলেছেন তা তুলে ধরেন। এতে তিনি আগরতলার গরিব ঠেলা চালক গৌতম দাসের কাজের প্রশংসা করেন । প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর সামনে তুলে ধরেন, গৌতম বাবু কিভাবে ঠেলা চালিয়ে রোজগার করে, সর্বস্ব দিয়ে, অসহায় মানুষের মুখে, খাবার তুলে দিয়েছেন । প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরেই, রাজ্যজুড়ে গৌতম বাবুকে নিয়ে, বয়ে যায় প্রশংসার বন্যা। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব নিজ উদ্যোগে গৌতম বাবুকে নিয়ে আসেন তার সরকারি আবাসে। সেখানে নিজের হাতে গৌতম দাসের গলায় পরিয়ে দেন রাজ্যের চিরাচরিত রিসা ।হাতে তুলে দেন উপহারও ।
পরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, গৌতম দাসের মত এরকম রিক্সাচালক এবং ক্ষৌরকর্মী প্রায় বারো হাজারের  মত চিহ্নিত করা হয়েছে । তাদেরকে মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল থেকে ১০০০ টাকা করে সহায়তা করা হবে।

উল্লেখ্য, লকডাউন পরিস্থিতিতে রাজ্যের জনগণের সদর্থক ভূমিকার কথা নিয়মিত  সরকারের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পাঠানো হচ্ছে । এরমধ্যে আগরতলার প্রতাপগড় এলাকার গরীব ঠেলা চালক গৌতম দাসের দুর্গত মানুষদের মাঝে ত্রাণ বন্টনের কথা প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের কাছে তুলে ধরেন, প্রদেশ বিজেপির সভাপতি ডা: মানিক সাহা। এর পর প্রধানমন্ত্রীর "মন কি বাত" অনুষ্ঠানে তার কথা তুলে ধরায় খুশি সবাই।

ছবিঃ সংগৃহীত
৩১শে মে ২০২০

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here