পেট্রাপোলে ট্রাকেই পচে যাচ্ছে এলসি’র পেঁয়াজ ঃ বাংলাদেশ - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পেট্রাপোলে ট্রাকেই পচে যাচ্ছে এলসি’র পেঁয়াজ ঃ বাংলাদেশ

প্রভাষ চৌধুরী, ঢাকা ব্যুরো এডিটর, আরশিকথাঃ

ভারত থেকে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় পেঁয়াজ বোঝাই প্রায় ২০টি ট্রাক ভারতের পেট্রাপোল বন্দর এলাকায় আটকে আছে। পেঁয়াজ রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা জারি বহাল থাকায় টানা ১১ দিন ধরে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। বাংলাদেশি পেঁয়াজ আমদানিকারকরা জানান, তাদের ভারতীয় রপ্তানিকারক প্রতিনিধিদের মাধ্যমে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পুরোনো এলসির (আমদানির ঋণপত্র) আটকে পড়া পেঁয়াজ ছাড় করণের বার বার আবেদন জানালেও এখন পর্যন্ত কোনো সাড়া পাননি। ফলে দেশে পেঁয়াজ আমদানি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। পেঁয়াজ আমদানিকারক রফিকুল ইসলাম বলেন, ভারতের প্রেট্রাপোল বন্দরে প্রায় ২০টি পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় আটকে আছে। নিষেধাজ্ঞার আগেই এসব ট্রাক প্রেট্রাপোল বন্দর এলাকায় পৌঁছেছিল। এরই মধ্যে আটকে থাকা ট্রাকগুলোর পেঁয়াজে পচন ধরে গেছে। দ্রুত পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাকগুলো না ছাড়লে আমাদের আরও লোকশানে পড়তে হবে। তিনি আরও বলেন, ভারত সরকার প্রতি বছরই পেঁয়াজ নিয়ে কখনো উৎপাদন সংকট আবার কখনো রপ্তানি মূল্য তিন গুণ বাড়িয়ে আমদানি বন্ধ করতে বাধ্য করে। এ ক্ষেত্রে পেঁয়াজের সংকট মোকাবিলায় ভারত ছাড়াও বাইরের কিছু দেশের সঙ্গে সরকারের বাণিজ্যিক সর্ম্পক্য আরও জোরদারের আহ্বান জানাচ্ছি। বেনাপোল আমদানি-রপ্তানি সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল হক বলেন, আমরা ভারতীয় ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে পেঁয়াজ রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়েছিলাম। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। ফলে এ পথে আমদানি অনিশ্চিত হয়ে দাঁড়িয়েছে। বেনাপোল কাস্টমস হাউজের কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা আকছির উদ্দিন মোল্যা বলেন, ভারত সরকার কোনো ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ পেঁয়াজ সংকট দেখিয়ে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বাংলদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। গত ১১ দিনে বেনাপোল বন্দর দিয়ে এ পর্যন্ত কোনো পেঁয়াজের ট্রাক ঢুকতে দেয়নি ভারতীয় সরকার। দেবে কি না তাও নিশ্চিত জানাতে পারেনি। তবে এ পথে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকলেও বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দরের মধ্যে অন্যান্য পণ্যের আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্য সচল রয়েছে।

আরশিকথা
২৫শে সেপ্টেম্বর ২০২০

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here