বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনারকে সংবর্ধনাঃ ত্রিপুরা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২০

বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনারকে সংবর্ধনাঃ ত্রিপুরা

প্রভাষ চৌধুরী, আরশি কথা: ভারতের ত্রিপুরার আগরতলার বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনার মোহাম্মদ জোবায়েদ হোসেনকে সংবর্ধনা দিয়েছে ইন্দো-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ত্রিপুরা চ্যাপ্টার। মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) সকালে আগরতলার একটি রেস্টুরেন্টে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ইন্দো-বাংলা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি, ত্রিপুরা চ্যাপ্টার।
এ সভায় সহকারী হাইকমিশনার বাংলাদেশ ও ভারতের বিপুল বাণিজ্য সম্ভাবনা কাজে লাগানোর উপায় নিয়ে ত্রিপুরার ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। ব্যবসায়ী নেতাদের এ সভায় মোহাম্মদ জোবায়েদ হোসেন বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্যের মাধ্যমে এ সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।’ দুই দেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনার বিকাশ, বিশেষ করে ত্রিপুরার সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য সম্ভাবনা কাজে লাগানোর জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। এ সময় বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে সর্বাত্মক সহায়তার জন্য ত্রিপুরার জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন সহকারী হাইকমিশনার।
এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সহকারী হাইকমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রথম সচিব) জাকির হোসেন ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন আইবিসিসিআই, ত্রিপুরা চ্যাপ্টারের সভাপতি রতন সাহা,সহ-সভাপতি তুষার কান্তি চক্রবর্তী,সম্পাদক সুজিত রায় ও আইসিপি, আগরতলার ব্যবস্থাপক দেবাশীষ নন্দী প্রমুখ।চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির ত্রিপুরা চ্যাপ্টারের সম্পাদক সুজিত রায় বলেন, ত্রিপুরা ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি করার জন্যই এই সংগঠন গড়ে তোলা হয়েছে।যখনই আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য নিয়ে কোনও সমস্যা হয় ত্রিপুরার আমদানি রপ্তানিকারকরা সহকারী হাইকমিশনারের কার্যালয়ে যান।সেখান থেকে যথেষ্ট সহযোগিতা পান বলে জানান তিনি।


আরশিকথা ত্রিপুরা সংবাদ


ছবিঃ বাংলাদেশ ব্যুরো ও 

সুমিত কুমার সিংহ

২৯শে ডিসেম্বর ২০২০


 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner