বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু উদ্বোধন ৯ মার্চ - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১

বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু উদ্বোধন ৯ মার্চ

আবু আলী ঢাকা, আরশিকথা ।।

একটি সেতুর মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত হতে যাচ্ছে ভারতের ত্রিপুরা রাজ‌্য। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মঙ্গলবার (৯ মার্চ) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ফেনী নদীর ওপর নির্মিত  বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সেতু উদ্বোধন  করবেন।


সোমবার (৮ মার্চ) ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় এ সেতু উদ্বোধন করা হবে।

ভারতের দক্ষিণ ত্রিপুরার সাব্রুমের ডৌলবাড়ি থেকে বাংলাদেশের খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় পর্যন্ত বিস্তৃত এ সেতু। এটি চালু হলে ভবিষ্যতে ত্রিপুরার মধ‌্যে দিয়ে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলো চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতে পারবে। এ লক্ষ্যে ভারত ও বাংলাদেশ সেতু নির্মাণে সম্মত হয়। সেতু নির্মাণের পুরো খরচ বহন করেছে ভারত। ১৩৩ কোটি টাকার এ প্রকল্পের তত্ত্বাবধানে ছিল ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়েস অ্যান্ড ইনফ্রাস্টাকচার ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন লিমিটেড।

ত১.৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতু বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী রামগড়ের সঙ্গে ভারতের সাব্রুমের সংযোগ স্থাপন করবে। সাব্রুম থেকে চট্টগ্রাম বন্দর মাত্র ৭২ কিলোমিটার দূরে। চট্টগ্রাম বন্দর থেকে আগরতলার দূরত্ব ১০৪ কিলোমিটার।

এদিকে, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে সংযোগকারী ‘মৈত্রী সেতু’র উদ্বোধন সর্ম্পকে রবিবার ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাণিজ্য এবং দুই দেশের মধ্যে ভ্রমণকারী মানুষের জন্য ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে নতুন অধ্যায়ের সূচনা হতে যাচ্ছে এই সেতুটির মাধ্যমে। 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এটি উদ্বোধনের ফলে ত্রিপুরা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বন্দরে প্রবেশের জন্য ‘গেটওয়ে অব নর্থ-ইস্ট’ হয়ে উঠবে।

মৈত্রী সেতুর পাশাপাশি আগামীকাল নরেন্দ্র মোদি সাব্রুমে একটি ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্ট নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এটি দুই দেশের মধ্যে পণ্য ও যাত্রীদের চলাচল সহজ, উত্তর-পূর্ব রাজ্যের পণ্যগুলোর জন্য নতুন বাজারের সুযোগ তৈরি এবং ভারত ও বাংলাদেশের যাত্রীদের চলাচল নির্বিঘ্ন করতে সহায়তা করবে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।


আরশিকথা বাংলাদেশ সংবাদ

৮ই মার্চ ২০২১ 

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner