প্রথম তালিবানি ‘ফতোয়া’-য় নিষিদ্ধ করা হলো ছাত্রছাত্রীদের একসঙ্গে পড়াশোনা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

শনিবার, ২১ আগস্ট, ২০২১

প্রথম তালিবানি ‘ফতোয়া’-য় নিষিদ্ধ করা হলো ছাত্রছাত্রীদের একসঙ্গে পড়াশোনা

নিজস্ব প্রতিনিধি,আরশিকথাঃ


কথায় আর কাজে আকাশ-পাতাল তফাৎ দেখিয়ে দিল জঙ্গিবাহিনী। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম ফতোয়া জারি কর তালিবান। শনিবার হেরাট প্রদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনায় বসে প্রথমেই ছাত্রছাত্রীদের একত্রে পড়াশোনা বন্ধ করে দিল তারা। এমনকী শিক্ষকদের মধ্যে লিঙ্গভেদ করে দেওয়া হল। মেয়েদের পড়াবেন কেবল শিক্ষিকারাই। আর ছেলেরা পড়বে শিক্ষকদের কাছে। ২০০১ সাল থেকে ২০২১। গত ২০ বছরে আফগানিস্তানের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কো-এডুকেশন ব্যবস্থা চালু ছিল। সকলে একসঙ্গে পড়াশোনা করার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু চলতি মাসে ‘কাবুলিওয়ালা’র দেশ তালিবানের দখলে চলে যাওয়ার পর উঠল আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থা। ফিরে এল পুরনো প্রথা। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়। সর্বত্র জারি একই নিয়ম। আলাদা ক্লাসরুমে বসবে ছাত্র ও ছাত্রীরা। ছাত্রীদের ক্লাস নিতে পারবেন শুধু মহিলারা। কোনও পুরুষ শিক্ষকের সেদিকে ঘেঁষার উপায় নেই। আর ছাত্রদের পড়াবেন পুরুষরা। সেখানে কোনও শিক্ষিকার স্থান নেই। শনিবার হেরাট প্রদেশে এমনই ফতোয়া জারি করল তালিবান বাহিনী।


আরশিকথা দেশ-বিদেশ সংবাদ

২১শে আগস্ট ২০২১
 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner