প্রয়াত সাংবাদিক্ক শান্তনু ভৌমিককে স্মরণ, দোষীদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির দাবি - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

প্রয়াত সাংবাদিক্ক শান্তনু ভৌমিককে স্মরণ, দোষীদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির দাবি

 তন্ময় বনিক,আগরতলাঃ
 তরুন সাংবাদিক শান্তনু ভৌমিক হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূর্তিতে স্মরণসভা করলো ফোরাম ফর প্রোটেকশন অব জার্নালিস্ট। পাশাপাশি স্মরণসভা করেছে বাম ছাত্রযুব সংগঠনও। প্রসঙ্গত, গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর মান্দাইয়ে একটি রাজনৈতিক দলের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে রহস্যজনকভাবে খুন হয়েছিলেন রাজ্যের একটি বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিক শান্তনু ভৌমিক। 
পূর্বতন রাজ্য সরকার এই ঘটনার তদন্তের জন্য সিট গঠন করেছিলো। বরতমান রাজ্য সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রতিশ্রুতি মোতাবেক সিবিআই তদন্ত দেয়। অথচ এখন পর্যন্ত এই মামলার কুল কিনারা হয়নি। বছর ঘুরে এলো সেই ২০ সেপ্টেম্বর। এদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকালে আগরতলায় সিটি সেন্টারের সামনে বাম ছাত্রযুব সংগঠনগুলির উদ্যোগে স্মরণসভা করা হয়। 
 উপস্থিত ছিলেন ডিওয়াইএফআই এর রাজ্য সম্পাদক অমল চক্রবর্তী, সিপিএমের পশ্চিম জেলা সম্পাদক পবিত্র কর, সিটুর রাজ্য সম্পাদক প্রাক্তন মন্ত্রী মানিক দে সহ অন্যান্যরা। শ্রী দে বলেন, আমরা চাই এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা যুক্ত তাদের চিহ্নিত করে শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক। এই নৃশংস বর্বরোচিত খুনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান তিনি। শান্তনু তাঁর কাজের মধ্য দিয়ে অমর হয়ে গেছে। মানুষ চিরদিন তাঁকে স্মরণ রাখবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি। 
এদিকে পিসিসি সভাপতি বীরজিত সিনহা বলেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে শান্তনু ভৌমিককে। তিনি প্রশ্ন তোলেন সিবিআই তদন্ত দিয়ে কি হয়েছে? কবে তদন্ত শেষ হবে তা নিয়ে সন্দিহান তিনি। পিসিসি সভাপতি এই হত্যাকাণ্ডের দ্রুত শেষ করে হত্যাকারীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানান।
এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনের সামনে স্মরণসভা করে ফোরাম প্রোটেকশন অব জার্নালিস্ট। সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনগুলির মিলিত এই সংগঠন শান্তনু ভৌমিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। পাশাপাশি সমবেদনা জ্ঞাপন করে প্রয়াত সাংবাদিকের পরিবার পরিজনদের প্রতি। সংগঠন দাবি তোলে এই নৃশংস হত্যাকান্দের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তি প্রদানের। স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন আগরতলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সুবল কুমার দে, সম্পাদক প্রণব সরকার, বরিষ্ঠ সাংবাদিক নবেন্দু ভট্টাচার্য সহ অন্যান্যরা।

ছবিঃ সুমিত কুমার সিংহ
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং                 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here