ত্রিপুরা থেকে বিশিষ্ট কবি মীনাক্ষী ভট্টাচার্য লিখলেন - " সুখ-দুঃখের কবিতা " - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

রবিবার, ৯ জুন, ২০১৯

ত্রিপুরা থেকে বিশিষ্ট কবি মীনাক্ষী ভট্টাচার্য লিখলেন - " সুখ-দুঃখের কবিতা "

সুখ-দুঃখের কবিতা ....



# দুজন কথা বলছিলেন।
একজন বললেন, "আপনাকে দেখে মনে হয় -
আপনি খুব সুখি,দারুণভাবে জীবন্ত আর প্রাণবন্ত
কথায় কথায় কী সুন্দর হাসেন !
মনে হয়,
আপনার কোনো অতৃপ্ত বাসনা নেই
নেই কোনো ব্যর্থতা, দুঃখ
কোনো বিষাদময় ঘটনাই 
সম্ভবতঃ ঘটে নি আপনার জীবনে 
তাই আপনি প্রাণখুলে এভাবে হাসতে পারেন
কিন্তু আমাকে দেখুন - 
আমি ইচ্ছে করেও পারি না 
এমন করে হাসতে 
ব্যর্থতার পাহাড়- ঘেরা এ জীবন 
শুধু দুঃখ-দৈন্য-পরাজয়-অভাব আর হতাশা 
তাই আপনাকে দেখি অবাক চোখে ! "

শুনে অন্যজন স্বভাবসুলভ ভঙ্গীতে হেসে বললেন -
" এ জীবন, এ জগৎ বড়ো সুন্দর
মন ভরে যায়, তৃপ্তি আসে 
যদিও বুকের মধ্যে সযত্নে, সংগোপনে 
রেখেছি একটা কৌটো - কষ্ট-ছিপি- আঁটা 
বাইরে যতো বেশী হাসতে থাকি - 
ভেতরে ততো কান্না ঝরতে থাকে কৌটোটা থেকে 
দুঃখের ভেতরে সুখ খুঁজে খুঁজে 
একদিন ঠিক শিখে গেছি
দুঃখকে সুখের মতো ব্যবহার করতে 
আসলে আমার কাছে -
বেদনাটা ব্যক্তিগত 
আর - আনন্দটা সবার জন্য 
এভাবেই প্রতিদিনের তুচ্ছতা সরিয়ে দিয়ে 
সৃষ্টি করেছি আনন্দে - ঘেরা
এক অশেষ আকাশ ।  


-- মীনাক্ষী ভট্টাচার্য, ত্রিপুরা 

৯ই জুন ২০১৯ইং

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here