খাবার পরিবর্তনের মাধ্যমে বিনা ঔষধে সুস্থ থাকার পথ দেখাচ্ছেন নিউট্রিশনিষ্ট তপন দত্ত - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০

খাবার পরিবর্তনের মাধ্যমে বিনা ঔষধে সুস্থ থাকার পথ দেখাচ্ছেন নিউট্রিশনিষ্ট তপন দত্ত

'আরশিকথা হাইলাইটস'-এ আজ যার বিশেষ কর্মের কথা তুলে ধরছি তিনি খুব ধীরে ধীরে প্রচারের আলোকে আসতে শুরু করেছেন | তার জন্মস্থান এবং কর্মস্থান উভয়ই ত্রিপুরা।কিন্তু বর্তমানে তিনি দেশের রাজধানী দিল্লীতে কর্মরত।বর্তমানে পাশ্চাত্য চিকিৎসা পদ্ধতির মাধ্যমে জনগন যখন তার শেষ সম্বলটুকু দিয়েও সুস্থতার শেষ কিরণটুকু পাওয়ার আশায় নি:স্ব হওয়ার পথে তখন তিনি ভারতের প্রাচীন চিকিৎসা পদ্ধতি "প্রাকৃতিক চিকিৎসা" তথা “Naturopathy”-র মাধ্যমে সবাইকে দিশা দেখানোর কাজে সচেষ্ট হয়েছেন।তিনি কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারীর পাশাপাশি আজ একজন সফল মেডিকেল নিউট্রিশনিষ্ট তপন দত্ত।কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানের সান্মানিক স্নাতক পরবর্তিকালে মালয়েশিয়ার Linkoln University College থেকে Medical Nutritionist এবং Indo Vietnum Medical Board  থেকে Diabetes Educator এর পরীক্ষায় সফলতার সাথে উত্তীর্ণ হয়ে আজ সাধারন মানুষের সুস্থতার লক্ষে কাজ করে চলেছেন | প্রাকৃতিক চিকিৎসা পদ্ধতি অর্থাৎ খাবার পরিবর্তনের  মাধ্যমে বিনা ঔষধে কিভাবে সুস্থতা লাভ করা যায় এবং জীবনশৈলীর পরিবর্তনের মাধ্যমে কিভাবে জনগন নিজেদের সুস্থতা বজায় রাখতে পারে তারই এক বার্তা ঘরে ঘরে পৌছে দেবার চেষ্টায় রয়েছেন তিনি।
 
" কাঁশি থেকে কেন্সার বা
জ্বর থেকে আলসার,
বদলে ফেলুন খাওয়ার নিয়ম
সুস্থ বাঁচুন সারা জীবন "

শ্রী দত্ত এর প্রাকৃতিক চিকিৎসা পদ্ধতিটি DRM Diet Protocol নামে আজ দেশেবিদেশে পরিচিতি লাভ করেছে।দেশের প্রতিটি প্রান্তের সাধারন মানুষ, যারা আজ দীর্ঘ রোগযন্ত্রনায় ভুগছেন বা বর্তমান চিকিৎসা খরচের কথা ভেবে নিজের অজান্তে শরীরে রোগের ব্যাপকতা বৃদ্ধি করছেন অথবা দীর্ঘদিন সুস্থতা বজায় রাখতে চাইছেন, তাদের সুবিধার্থে ১লা জুলাই ২০২০ থেকে DRM Diet Protocol এর Online Clinic চালু হয়েছে।এর হোয়াটস অ্যাপ নাম্বার হলো ৭৪২৮২৬৯২৯৩ । সবাই এই যোগাযোগ ব্যবস্থার মাধ্যমে চিকিৎসার সুযোগ গ্রহন করে পারেন।

আরশিকথা ও সচেষ্ট থাকবে সমাজের সকল স্তরে শ্রী দত্ত এর এই বিশেষ বার্তা  পৌছে দিতে।আগামীদিনে আরশিকথার "স্বাস্থ্য সৌন্দর্য" বিভাগে তপন দত্ত এর প্রতিবেদন সবার কাছে সুস্থতার এক নতুন পথের সন্ধান দেবে এই আশা রাখি।

প্রধান সম্পাদকের কলামে
আরশিকথা

১৯শে জুলাই ২০২০ 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here