ক্রীড়া ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানকারী পঞ্চকন্যাদের নিয়ে শ্যাম সুন্দর এর উদ্যোগ "ত্রিপুরার সোনা" - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

সোমবার, ১০ জুন, ২০১৯

ক্রীড়া ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানকারী পঞ্চকন্যাদের নিয়ে শ্যাম সুন্দর এর উদ্যোগ "ত্রিপুরার সোনা"

আগরতলা ডেস্কঃ
প্রতিভার উজ্জ্বলতায় আমাদের পার্বতী ত্রিপুরা আজ সত্যি অর্থে সোনার রাজ্য। খাটি সোনার নিরিখে দেশের অনেক সেরা-রাই ত্রিপুরা রাজ্যের উর্বর ভূমির সন্তান এবং বহু মূল্যবান রত্ন। সেই কৃতি সোনার সন্তানদের নিজ নিজ ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ স্থান অর্জন আজ ত্রিপুরা রাজ্যকে বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে চলতে সহায়তা করছে।সোমবার (১০জুন) এক ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স গর্বিত মনোভাবে "ত্রিপুরার সোনা' তথা রাজ্যের ক্রীড়া ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানকারী পাঁচ সোনার মেয়েকে কৃতজ্ঞতা ও সম্মাননা জ্ঞাপন করলো। 
এই পাঁচ সোনার মেয়ে হলেন রাজ্যের গর্ব তথা অলিম্পিয়ান জিমন্যাস্ট পদ্মশ্রী দীপা কর্মকার,সেরার শিরোপা দখলকারী কিক বক্সিং-এর  নিষ্ঠা চক্রবর্তী,  ক্ষুদে দাবাড়ু অর্শিয়া দাস, উদীয়মান ক্রিকেটার মামন রবি দাশ এবং জাতীয় যোগা চ্যাম্পিয়ন পূজা সাহা।সঙ্গে ছিলেন শ্রেষ্ঠ গুরুর সম্মানে "দ্রোণাচার্য" উপাধিখ্যাত রাজ্যের আর এক গর্ব বিশ্বেশ্বর নন্দী।
সাফল্যের নিদর্শনে থাকা "ত্রিপুরার সোনা" প্রসঙ্গে অনুভব ব্যক্ত করতে গিয়ে শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স এর রূপক সাহা জানান, রাজ্যের প্রতিভাময় উর্বর জমিতে সোনা ফলছে। বিশ্ব অঙ্গনে ত্রিপুরার এই সোনা ইতিমধ্যেই খাটি সোনা হিসেবে গ্রহণযোগ্যতায় চলে এসেছে। 
তবে ইতিহাস বলে প্রত্যেক অর্জুন সৃষ্টি হওয়ার পেছনে গুরুশ্রেষ্ঠ দ্রোণাচার্যই প্রধান ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন।সেই লক্ষ্যে ভারতখ্যাত দ্রোণাচার্য বিশ্বেশ্বর নন্দী-কেও শ্যাম সুন্দর পরিবার সম্মাননা জ্ঞাপন করেছে।
শ্যাম সুন্দর পরিবারের এই উদ্যোগকে সামাজিক দায়বদ্ধতা বলে স্বীকৃতি দিয়ে পরিচালিকা অর্পিতা সাহা জানান, "ত্রিপুরার সোনা"-দের সম্মান জানানো আমাদের কর্তব্য এবং এই সুযোগ পেয়ে নিজেদের ধন্য মনে করছি। আমরা আপ্লুত।
১০ জুন আগরতলা প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স এর এই উদ্যোগে সংস্থার পক্ষ থেকে "ত্রিপুরার সোনা" - দের সম্মাননা স্মারক, উত্তরীয়, পুষ্পস্তবক,ফল ও মিষ্টি দিয়ে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়। এছাড়া সোনার এই পঞ্চকন্যাদের শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স এর পক্ষ থেকে প্রত্যেক কে হীরের গহনা উপহার দেওয়া হয়। 
গুরুশ্রেষ্ঠ দ্রোণাচার্য বিশ্বেশ্বর নন্দীকেও সংস্থার পক্ষ থেকে উপহার স্বরূপ সোনার গহনা প্রদান করা হয়।
পরিশেষে, "ত্রিপুরার সোনা" শীর্ষক এই অনুষ্ঠানে শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স আয়োজিত অক্ষয় তৃতীয়া উৎসবের মেগা লাকি ড্র এর বিজেতা আগরতলা রামনগর নিবাসী মানিক শীল এর হাতে ঘোষণা অনুযায়ী মূল্যবান হীরের নেকলেস সেট তুলে দেওয়া হয়। 

ছবিঃ সৌজন্যে শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স 

১০ই জুন ২০১৯ইং
    

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner