ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক, এখন থেকেই সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক, এখন থেকেই সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি,আরশিকথাঃ


উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোর বর্তমান কোভিড পরিস্থিতি এবং টিকাকরণের অগ্রগতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উত্তর-পূর্বাঞ্চলে রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী করোনা মোকাবেলার ক্ষেত্রে টেস্টিং, ট্রাকিং এবং ট্রিটমেন্ট-এর ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোর যে সমস্ত জেলায় সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পেয়েছে সেখানে আরো সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। এ সমস্ত এলাকার জনগণের সতর্কতা অবলম্বনের পাশাপাশি সমস্ত ধরনের স্বাস্থ্য বিধি মানার জন্য নিরন্তর উৎসাহ প্রদান করার পরামর্শ দেন তিনি। এই কাজে সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের যুক্ত করার কথাও বলেন তিনি। পাশাপাশি করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জোন তৈরি করার ওপর উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলিকে গুরুত্ব আরোপ করতে হবে। তবেই পরিস্থিতি থেকে দ্রুত বের হওয়া সম্ভব। করোনা মোকাবেলায় গত দেড় বছর ধরে যে সমস্ত আচরণবিধি যেমন ২ মিটার দূরত্ব, মাস্ক পরিধান, হাত ধোয়া ইত্যাদি মানা হয়েছে তাও বজায় রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোর ভৌগলিক দিক দিয়ে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও রাজ্যগুলির টেস্টিং এবং টিকাকরণের পরিকাঠামোর উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন হয়েছে। করোনা মোকাবেলায় টিকাকরণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেন্দ্রীয় সরকার সবার জন্য বিনামূল্যে টিকাকরণের যে অভিযান হাতে নিয়েছে তা উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলিতে গুরুত্ব সহকারে সম্পাদন করতে তিনি অনুরোধ করেন। এরমধ্যেই উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কিছু কিছু রাজ্যে টিকাকরণের উল্লেখযোগ্য সফলতা অর্জন করেছে বলে প্রধানমন্ত্রী অভিমত ব্যক্ত করেন। এজন্য স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের যে সমস্ত রাজ্য টিকারণে পিছিয়ে রয়েছে সেখানে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। তবেই কম সময়ের মধ্যে সেখানে টিকাকরণ সফলতা আসবে। পাশাপাশি জনগণের মধ্যে টিকাকরণের উৎসাহ বৃদ্ধির লক্ষ্যে সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত সেলিব্রিটিদের মাধ্যমে প্রচার অভিযান করার কথা উনি ব্যক্ত করেন। বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব করোনা মোকাবেলায় রাজ্য সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলি তুলে ধরেন। তিনি জানান, কোভিড মোকাবেলায় টিকাকরণ অভিযান রাজ্যে দ্রুত গতিতে চলছে। রাজ্যের টিকাকরণের সমস্ত খতিয়ান তুলে ধরেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, করোনাকালীন পরিস্থিতিতেও রাজ্যের আর্থিক স্থিতি বজায় রাখা সম্ভব হয়েছে। এর জন্য কৃষিসহ প্রাইমারি সেক্টরগুলির উন্নয়নে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজ করছে রাজ্য সরকার। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় রাজ্য সরকার কারফিউ জারি করায় যে সমস্ত গরিব এবং প্রয়োজন রয়েছে এমন পরিবারগুলিকে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এরকম সাত লক্ষ পরিবারে স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে পৌঁছানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী আরো বলেন, রাজ্যের বর্তমান স্বাস্থ্য পরিকাঠামো তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।বৈঠকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা নিজ নিজ রাজ্যের কোভিড মোকাবেলায় কি কি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে তা প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন।

এই কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মানদেভিয়া উপস্থিত ছিলেন। রাজ্যের পক্ষে মুখ্য সচিব কুমার অলক, স্বাস্থ্য দপ্তরের প্রধান সচিব জে কে সিনহাসহ স্বাস্থ্য দপ্তর আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন।


আরশিকথা দেশ-বিদেশ

১৩ই জুলাই ২০২১
 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

test banner