রাজ্যে কালচারেল পার্ক হবে,শচিন কর্তার জন্মদিনে বলেন মুখ্যমন্ত্রী ঃ ত্রিপুরা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০

রাজ্যে কালচারেল পার্ক হবে,শচিন কর্তার জন্মদিনে বলেন মুখ্যমন্ত্রী ঃ ত্রিপুরা

নিজস্ব প্রতিনিধি,আগরতলা,আরশিকথাঃ

কুমার শচিন দেববর্মণের জন্মবার্ষিকীতে রাজ্যে কালচারেল পার্ক গড়ার ঘোষণা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।তিনি বলেন,২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে কারচারেল পার্ক গড়া হবে।যেখানে উত্তর পূর্বাঞ্চলের প্রথিতযশা শিল্পী যেমন শচিন কর্তা,রাহুল দেববর্মণ,ভূপেন হাজারিকাদের জীবনাদর্শ তুলে ধরা হবে।

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) তথ্য সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে কুমার শচিন দেববর্মণের জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনে।সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,শচিন কর্তা হিন্দি ও বাংলা মিলিয়ে ১১৭টি সিনেমায় গান গেয়েছেন কিংবা সুর দিয়েছেন।পদ্মশ্রী পেয়েছেন। ১৯৩৫ সালে প্রথম সঙ্গীতকার হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে শচিন কর্তার।শচিন দেববর্মণ ও তাঁর সুযোগ্য পুত্র আর ডি বর্মণ ত্রিপুরা ও ত্রিপুরাবাসীর জন্য গর্বের।
এরা কিংবদন্তিমহান শিল্পী।মুখ্যমন্ত্রী বলেন,রাজ্য সরকার গ্রামগঞ্জ থেকে প্রতিভাবান শিল্পীদের তুলে আনার চেষ্টা চালিয়েছে।তথ্য সংস্কৃতি দপ্তর এর জন্য কাজ করছে।রাজ্য সরকার যাত্রা শিল্পকেও তুলে ধরতে চাইছে।প্রত্যাশিতভাবেই মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা উঠে আসে।মুখ্যমন্ত্রী বলেন,দেশের প্রতিটি ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন এনেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।তার দেখানো পথেই রাজ্য সরকার কাজ করছে।প্রসঙ্গত,উল্লেখ্য ১৯০৬ সালের ১লা অক্টোব
র জন্মগ্রহণ করেছিলেন শচিন দেববর্মণ।বাংলাদেশের কুমিল্লাতে।১৯৭৫ সালের ৩১ অক্টোবর প্রয়াত হন মুম্বাইতে।


ছবিঃ সুমিত কুমার সিংহ

আরশিকথা


১লা অক্টোবর ২০২০ 

 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here