অপেক্ষা আজ গোটা বিশ্বের......... ঢাকা থেকে রীতা আক্তার - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

test banner

Post Top Ad

test banner

বুধবার, ৮ এপ্রিল, ২০২০

অপেক্ষা আজ গোটা বিশ্বের......... ঢাকা থেকে রীতা আক্তার

সময়টা কেমন থমকে আছে তাই না...
গোটা বিশ্ব স্তব্ধ।মৃত্যুর মিছিল যাচ্ছে শহরের রাজপথে। 
কেমন একটা দম আটকে যাওয়া সময় পার করছি আমরা সবাই মিলে। 

সবথেকে খারাপ অবস্থা খেটে খাওয়া নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোর। যেখানে একদিন কাজ না করলে চুলায় ভাতের হাঁড়ি চড়ে না, অভুক্ত রয় কিছু মুখ।চোখের সামনে রয়েছে অনিশ্চয়তার পাহাড়।এক বেলা খেলে আরেক বেলা কি খাবে, সে চিন্তায় অস্হির থাকে আমাদের সমাজে এই নিম্নবিত্ত পরিবারগুলো। এদিকে চলছে লকডউন। বাইরে বের হতে পারছে না কেউ যেতে পারছেনা কাজে। অথচ, কাজ না করলেও যে দু' মুঠো ভাতের যোগান হবে কি করে?  বড়ই অস্হির সময় যাচ্ছে। দম বন্ধ করা কঠিন এক সময়। আমাদের সমাজের যারা বিত্তবান আছেন তাদের উচিত সরকারের পাশাপাশি এই নিম্নবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ানো।আমরা যদি পাশে না দাঁড়াই তবে এই মানুষগুলো কোথায় যাবে?  তাদের ঘরেও তো রয়েছে দুধের শিশু, আছে বৃদ্ধ।সবাই আজ এগিয়ে আসতে হবে এই দুঃসময়ে ওদের পাশে।

আর, আমরা যারা মধ্যবিত্ত, তাদের অবস্হাও যে খুব ভালো তাও নয়। মাস গেলে বাড়ি ভাড়া, গ্যাস বিল, পানির বিল, বিদ্যুত বিল, বাচ্চার স্কুলের বেতন আরো কত বিলের জন্য টাকার যোগাড় করে রাখা, খাই না খাই মাস গেলে প্রতিটা টাকা গুনে গুনে দিয়ে দিতে হয়, এটা একটা বড়ই চাপের ব্যপার। মধ্যবিত্ত এই পরিবারগুলো না পারে রাস্তায় নেমে কাজ করতে, না পারে কারো দুয়ারে হাত পাততে।প্রতিটি মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোও আজ হুমকির মুখে। কোথা থেকে আসবে টাকা এই দু্ঃসময়ে। সবারই তো এক অবস্হা।

শহরে কত লোকের বসবাস। কত মানুষ। রাজপথে নেই ধোয়া, নেই গাড়ি। নেই বায়ু দূষনের মতো পরিবেশ। বারান্দায় দাঁড়ালে প্রাণ ভরে নিঃশ্বাস নিতে ইচ্ছে করে। তবু ভয় লাগে এই বাতাসেও কি বিষ আছে? 
কোলাহলহীন শহর। 
সময় মতো মসজিদের আযান ভেসে আসে। কেউ বের হয় না মসজিদের উদ্দেশ্যে। নিরব চারদিক, যেনো সব থেকেও কিছু নেই, কেউ নেই। 

আজ স্তব্ধ হয়ে গেছে গোটা শহর, গ্রাম। 
জানিনা কবে ফিরবে সোনালী আলো। যে দিন ঘুম ভেঙে টি ভি অন করেই শুনতে পাবো করোনা আর নেই বিশ্বে। কবে শুনতে পাবো করোনার প্রতিষেধক আবিস্কার হয়েছে। 
প্রতিটি দিন তো যাচ্ছে দিনের নিয়মেই কিন্তু আসছেনা সেই সকাল একটা করোনাবিহীন সকাল।
আজকাল বেলকুনিতে দাঁড়িয়ে বাতাস খেতেও ভয় লাগে, মনে এই বুঝি বাতাসের গায়ে করোনা লেপ্টে আছে। 
সময়টা থমকে আছে। একটা ছোট্ট ভাইরাস গোটা বিশ্বকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। নেই কোথাও যুদ্ধ, নেই রক্তপাত, নেই হানাহানি, শুধু আছে লাশের মিছিল। 
লাশের মিছিল।
আর কত লাশের স্তুপ হলে করোনা রেহাই দিবে গোটা বিশ্বকে?  আর কত মানুষ জানাযা বিহীন দাফন হবে?  কত মানুষ হবে দাহ। আর কত লাশের মিছিলে ছেয়ে যাবে বিশ্বের প্রিতিটি দেশ। 
আর কত কান্নায় ভারি হবে প্রকৃতির নিরব বাতাস? 
সময় শুধু অপেক্ষা করে যাওয়া। 
একটি নতুন ভোরের অপেক্ষা। 
একটি নির্মল হাসির অপেক্ষা।
----------------------------------------------------------
রীতা আক্তার 
ঢাকা,বাংলাদেশ

৮ই এপ্রিল ২০২০

1 টি মন্তব্য:

Post Bottom Ad

test banner