ট্রেনিং ইনচার্জ সুমন লস্করকে প্রদেশ কংগ্রেসের তরফে সংবর্ধনা জ্ঞাপনঃ ত্রিপুরা - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ট্রেনিং ইনচার্জ সুমন লস্করকে প্রদেশ কংগ্রেসের তরফে সংবর্ধনা জ্ঞাপনঃ ত্রিপুরা

নিজস্ব প্রতিনিধি,আগরতলা,আরশিকথাঃ

জাতীয় কংগ্রেস দলের ভাবাদর্শকে সব অংশের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য অনেক আগে থেকেই একটি ট্রেনিং ডিপার্টমেন্ট রয়েছে।যেখান থেকেুসকল সদস্যদের দলের গোড়াপত্তনের ইতিহাস বুঝিয়ে এবং স্বাধীনতার সময় কংগ্রেসের নানা পদক্ষেপ ও কর্মসূচীগুলির তাৎপর্য ব্যাখ্যার মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করা হয়।যাতে সাধারণ মানুষ জাতীয় কংগ্রেসের মূল ভাবনাকে উপলব্ধি করে দেশের জন্য কাজ করার কর্মসূচীতে একজোট হতে পারে।শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) কংগ্রেস ভবনে আয়োজিত একটি অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে এআইসিসি'র পক্ষে ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের নবনিযুক্ত ট্রেনিং ইনচার্জ সুমন লস্করকে দলের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা ও শুভেচ্ছাজ্ঞাপন করা হয়।শিক্ষাগত যোগ্যতায় এনআইটি নাগপুর থেকে ২০০৪ সালে শ্রী লস্কর বি.ই ডিগ্রি লাভ করেন।এরপর আইওয়াইসি এবং এনএসইউআই এর তরফে রিজিওনাল কোঅর্ডিনেটর সহ নানা গুরুত্বপূর্ণ পদের দায়িত্ব পালন করেছেন।এছাড়াও অরাজনৈতিক ক্ষেত্রে দেশবিদেশের নানা প্রজেক্টের গুরুদায়িত্বে নিজ দক্ষতার প্রমাণ রেখেছেন তিনি।ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস দলের পক্ষ থেকে তার প্রতি যে সম্মান প্রদর্শন করা হলো তার জন্য তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এদিন তিনি দলের ইতিহাস টেনে দেশের প্রতি কংগ্রেসের নানা দায়বদ্ধতার কথা উল্লেখ করেন।তিনি বলেন দলের ইতিহাস জানাটা বর্তমানে বেশি প্রয়োজন।আর ইতিহাস জানলেই কংগ্রেসের মূল ভাবনা সম্পর্কে সবাই অবগত হতে পারবেন।যে দায়িত্ব তাকে দেওয়া হলো তিনি তা নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের ভিত আরও শক্ত করবেন বলে অভিমত ব্যক্ত করবেন।এই বিষয়ে তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।
এদিন প্রদেশ কংগ্রেস এবং যুব কংগ্রেসের তরফে লক্ষ্মী নাগ,পূজন বিশ্বাস,বাপ্টু চক্রবর্তী সহ দলের অন্যান্য পদাধিকারীগণ ও সদস্যরা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 


ছবিঃ সুমিত কুমার সিংহ
আরশিকথা

১১ই সেপ্টেম্বর ২০২০      

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here