ব্যতিক্রমী কাজের স্বীকৃতি হিসেবে টিজিবিআরসেটি-কে পুরস্কার প্রদান - আরশি কথা

আরশিকথা ঝলক

Home Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

শনিবার, ৫ মে, ২০১৮

ব্যতিক্রমী কাজের স্বীকৃতি হিসেবে টিজিবিআরসেটি-কে পুরস্কার প্রদান


নিজস্ব প্রতিনিধি, আগরতলাঃ
ত্রিপুরা গ্রামীণ ব্যাংক রুরাল সেলফ এমপ্লয়মেন্ট ট্রেনিং ইন্সটিটিউট তথা টিজিবিআরসেটি-কে তার ব্যতিক্রমী কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কৃত করা হল শনিবার(৫মে)। রাজ্যের মাননীয় উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মা এই পুরস্কার প্রদান করেন। ঐদিন আজীবিকা দিবস উপলক্ষ্যে রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পুরস্কার ত্রিপুরা গ্রামীণ ব্যাংকের চেয়ারম্যান মহেন্দ্র মোহন গোস্বামী এবং সংস্থার পরিচালক প্রসেনজিৎ চক্রবর্তীর হাতে তুলে দেওয়া হয়। প্রসঙ্গত গ্রাম স্বরাজ অভিযানের প্রেক্ষাপটে আজীবিকা ও কৌশল বিকাশ দিবস উদযাপন করা হয় শনিবার(৫মে)। রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন উপমুখ্যমন্ত্রী যিষ্ণু দেববর্মা। 
ত্রিপুরা গ্রামীণ জীবিকা মিশন, দক্ষতা উন্নয়ন দপ্তর এবং উত্তর পূর্ব গ্রামীণ জীবিকা প্রকল্প এই অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনায় ছিল। অনুষ্ঠানে উপমুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্য গ্রামন্নুোয়ন দপ্তরের মুখ্যসচিব এল কে গুপ্তা, টিআরএলএমের মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক অরূপ রতন শর্মা, এনইআরএলপি'র পক্ষে অমিতাভ রায়, আরসেটি'র রাজ্য পরিচালক বাবুল চন্দ্র শর্মা সহ অন্যান্যরা। 
অনুষ্ঠান শেষে প্রসেনজিৎ চক্রবর্তী বলেন আজীবিকা দিবস উপলক্ষ্যে প্রদত্ত এই পুরস্কার শুধু টিজিবিআরসেটি'র সম্মান নয়, এটি রাজ্যের সব গ্রামীণ ব্যাংকের সম্মান। তিনি আরও বলেন যে এই পুরস্কার ভবিষ্যতে এই সংস্থাকে আরও ভালো করে কাজ করতে উৎসাহিত করবে। এখানে উল্লেখ্য যে এই সংস্থা বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। বিশ্রামগঞ্জ ইলেকট্রিক অফিসের বিপরীতে এর মূল কার্যালয়। বর্তমানে এই সংস্থাটি মোট ৬৪টি কোর্সের উপর ট্রেনিং করায়। ১৮ থেকে ৪৫ বছর বয়স পর্যন্ত যে কোন পুরুষ বা মহিলা এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করতে পারে। বিপিএল ভুক্ত পরিবারগুলিই সাধারণত এই প্রশিক্ষণগুলি পেয়ে থাকে। এছাড়াও পিএমইজিপি'র প্রশিক্ষণগুলিও এই সংস্থার ব্যবস্থাপনায় হয় বলে শ্রী চক্রবর্তী জানান। 

৫ই মে ২০১৮ইং                  

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Post Bottom Ad

Responsive Ads Here